সাম্প্রতিক শিরোনাম

বদর যুদ্ধের আদলে সংসদ ভবনে জংগি হামলা চালানোর পরিকল্পনা ভেস্তে গেলো!

উগ্রপন্থী ইসলামি বক্তা আলি হাসান উসামার নির্দেশে সংসদ ভবনে তলোয়ার নিয়ে হামলার পরিকল্পনা করেছিল আনসার আল ইসলামের সক্রিয় সদস্য আল সাকিব। এই হামলার জন্য সাকিবকে মোট ৩১৩ জন সদস্যকে একত্রিত করার নির্দেশনা দেয় উসামা। বদর যুদ্ধের আদলে এই হামলা চালানোর পরিকল্পনা করেছিল সে। এজন্য ফেসবুকে গোপন একটি গ্রুপও খোলা হয়েছিল। পরিকল্পনা অনুযায়ী, সাকিব কয়েকজন সহযোগীসহ সংসদ ভবন এলাকায়ও গিয়েছিল। তাদের সঙ্গে ছিল ধারালো অস্ত্র। উদ্দেশ্য ছিল সংসদ ভবনে ঢুকতে বাঁধাদানকারী আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের ওপর প্রথমে হামলা করা হবে। যদি এতে তারা জয়লাভ করে, তাহলে সংসদ ভবনে প্রবেশ করবে।

কিন্তু গোয়েন্দা নজরদারির মাধ্যমে আগে থেকেই বিষয়টি জানতে পেরে আল সাকিবকে বুধবার (৫ মে) রাত ৮টার দিকে সংসদ ভবন এলাকার মানিক মিয়া এভিনিউ থেকে ধারালো অস্ত্রসহ গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার সহযোগী কয়েকজন পালিয়ে যায়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাকিবের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, রাতেই অভিযান চালিয়ে রাজবাড়ী থেকে গ্রেফতার করা হয় উগ্রবাদ ছড়ানো ইসলামি বক্তা আলি হাসান উসামাকে।

কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট সূত্র জানায়, রাহমানী কারাগারে থাকায় তার নতুন কোনও ওয়াজ বা বক্তব্যের প্রচারণা বন্ধ হয়ে গেছে। গত কয়েক বছর ধরে আলি হাসান উসামাকে ধর্মীয় ও আধ্যাত্মিক নেতা হিসেবে মেনে আসছিল আনসার আল ইসলামের নেতাকর্মীরা। উসামাই বদর যুদ্ধের আদলে ৩১৩ জনকে নিয়ে সাবিকবে সংসদ ভবনে হামলার নির্দেশনা দেয়। ১৭তম রমজানে বদর যুদ্ধ সংগঠিত হয়েছিল। যেই যুদ্ধে ৩১৩ জন সাহাবি অংশ নিয়েছিলেন।

কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের কর্মকর্তারা জানান, তারা উসামা ও সাকিবের ভার্চুয়াল যোগাযোগের কিছু তথ্য পেয়েছেন। এসব তথ্য যাচাই-বাছাই করছেন তারা। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী আল সাকিবও উসামার নির্দেশনায় হামলায় অংশ নেওয়ার কথা স্বীকার করেছে।

সংশ্লিস্ট সূত্র জানায়, সিলেটের বাসিন্দা আলি হাসান উসামা রাজবাড়ী জেলায় একটি মাদ্রাসা তৈরি করে সেখানেই বসবাস করে আসছিল। রাজবাড়ী থেকেই বিভিন্ন ওয়াজে কথিত জিহাদের ডাক দেওয়ার পাশাপাশি ইউটিউবে উগ্রবাদী মতাদর্শ ছড়াতো। উসামা যে মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেছে, সেই মাদ্রাসার উপদেষ্টা হলেন— মুফতি হারুন ইজহার ও মাওলানা মাহমুদুল হাসান গুণভী। তাদের দু’জনের বিরুদ্ধেও জঙ্গিবাদে মদদ, সম্পৃক্ততা ও উগ্রবাদী প্রচারণা চালানোর অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি চট্টগ্রামে নিজ মাদ্রাসা থেকে হারুন ইজহারকে গ্রেফতার করে এলিট ফোর্স র‌্যাব।

সর্বশেষ

ঈশ্বরদীতেও দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৭.৮ ডিগ্রি

পাবনার ঈশ্বরদীতে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। শুরু হয়েছে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ। ঘন কুয়াশা ও হিমেল বাতাসে বিপর্যস্ত হয়ে হয়ে পড়েছে জনজীবন।বুধবার (১১ জানুয়ারি)...

আফগানিস্তানে অন্তর্ভূক্তিমূলক আর্থ-সামাজিক অগ্রগতি দেখতে চায় বাংলাদেশ

প্রতিবেশী হিসেবে বাংলাদেশ আফগানিস্তানে অন্তর্ভুক্তিমূলক আর্থ-সামাজিক অগ্রগতি দেখতে চায়, যেখানে আফগান জনগণ তাদের উন্নত জীবনের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে পারে। সম্প্রতি আফগানিস্তানের উচ্চ শিক্ষা এবং...

গণতন্ত্রের নামে বাংলাদেশে অন্য রাষ্ট্রের হস্তক্ষেপের সুযোগ নেই বলছে রাশিয়া

গণতন্ত্রের অজুহাত দিয়ে বাংলাদেশ কিংবা অন্য কোনো দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বাইরের কারো হস্তক্ষেপ করার সুযোগ নেই। কোনো রাষ্ট্রে স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের সুরক্ষায় জাতিসংঘের ঘোষণায়...

র‍্যাবের উপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হবেনা, লবিষ্টকে জেরার আপিল করতে পারবে বাংলাদেশ

যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্যে র‍্যাবের কার্যক্রমে নিষেধাজ্ঞা আরোপের ব্যপারে শক্তিশালী লবিস্ট নিয়োগ করা হলেও সে পদক্ষেপ ভেস্তে গিয়েছে।এরই মধ্যে র‍্যাপিড একশন ব্যাটালিয়ন-র‍্যাবের ব্যপারে নিষেধাজ্ঞার আবেদন...