সাম্প্রতিক শিরোনাম

তুরস্ক ও গ্রীসের নৌ শক্তির তুলনা

তুরস্ক এবং গ্রীস জন্মলগ্ন থেকে জাত শত্রু একে অপরের ভূমধ্য সাগরে তেল গ্যাস অনুসন্ধান নিয়ে তুর্কি এবং গ্রীসের মধ্যে রীতিমতো তুলকালাম চলছে যেখানে আগুনে ঘি ঢালতেছে ফ্রান্স এবং আরব আমিরাত! এদিকে লিবিয়া পরিস্থিতি নিয়ে ও মিশরেরে সাথে তুরস্কের উত্তাপ চলছে!! গ্রীসের সাথে তুরস্কের সমস্যাটা মূলত তার মূল ভূখন্ডের কাছাকাছি অবস্থিত গ্রীসের দ্বীপগুলো নিয়ে এবং সমুদ্রসীমা নিয়ে!! চুক্তি অনুযায়ী গ্রীস এই দ্বীপগুলোকে সামরিকিকরণ করবে না, যেটা না মেনে গ্রীস সামরিকভাবে দ্বীপগুলো ব্যাবহার করছে বলে তুর্কীরা অবিযোগ করেছে এবং একে অপরের বিরুদ্ধে পাল্টাপাল্টি নৌ মহড়া চালিয়ে যাচ্ছে!! এমতাবস্থায় যদি যুদ্ধ হয় তাহলে উভয় দেশের মধ্য সর্বপ্রথমই বিমান ও নৌযুদ্ধ শুরু হবে কারণ তাদের সীমান্ত পার্বত্য এলাকায় এবং নদী দ্বারা বিভক্ত!! তাই মূল যুদ্ধটাই হবে নেভাল যুদ্ধ!! চলুন তাহলে জেনে যাক উভয় দেশের নৌশক্তির তুলনা মূলক ক্রমঃ

সাবমেরিন

১.তুরস্কের কাছে টাইপ ২০৯, ২০৯ টি ওয়ান ও ২০৯ টি ২ মেডেলের মোট ১২ টি সাবমেরিন আছে (প্রতি মডেলের ৪ টি করে) যেগুলোতে মোটামোটি ৮ টি টর্পেডো টিউব আছে এবং এগুলো হারপুন মিসাইল ফায়ার করতে পারে এন্টিশীপ রোলে।

অপরদিকে গ্রীসের একই মডেলের ৭ টি সাবমেরিন রয়েছে যার মধ্য ৩ টি অনেক পুরানো!! এদিক থেকে তুরস্ক বিশাল ব্যাবধানে এগিয়ে আছে

২. গ্রীসের কাছে টাইপ ২১৪ ক্লাসের সাবমেরিন আছে ৪ টি যেখানে তুরস্কের নিকট একটি ও নেই তুরস্ক ৬ টি অর্ডার করেছে যা ২০২১ থেকে পাবে!! বর্তমানে এই সাবমেরিনগুলো তুরস্কের জন্য একটা চ্যালেঞ্জ হয়ে দাড়াবে নিঃসন্দেহে!!

সারফেসশীপ

সারফেস শীপগুলো যেকোনো নেভাল ওয়ারফেয়ারের মেইন ফাইটার!! সারফেস শীপের উপরই নৌযুদ্ধের ক্ষমতা নির্ভর করে!! সারফেস শীপগুলো অনেক প্রকারের হয়, তো প্রথমেই আসা যাক ফ্রিগেটের কথায়ঃ
→ তুরস্কের ফ্রিগেট আছে ১৬ টি
→গ্রীসের ফ্রিগেট আছে ১৩ টি

ফ্রিগেট

১.হাইড্রা ক্লাস ফ্রিগেট(৩৩৬০ টন): গ্রীসের কাছে ৪ টি এই ক্লাসের ফ্রিগেট যা মূলত জার্মানির মেকু ২০০ ক্লাসের ফ্রিগেট। ফায়ার পাওয়ার হিসেবে আছে ১ টি এমকে ৪৫ গান, ২ টি ফ্যালাক্স CIWS, ৮ টি হারপুন এন্টিশীপ মিসাইল, ১৬ টি ৫০ কিলোমিটার রেঞ্জের রিম ১৬২ ESSM এয়ার ডিফেন্স মিসাইল এবং ৩২৪ মিমি এর টর্পেডো টিউব!!

★★ GABYA class ফ্রিগেটঃ গ্রীসের হাইড্রা ক্লাস ফ্রিগেটের তুরস্কের এই শ্রেণীর ৮ টি ফ্রিগেট রয়েছে!! ৪১০০ টনের এই ফ্রিগেটগুলোই তুরস্কের সবচেয়ে এডভান্স ফ্রিগেট যাতে রয়েছে লংরেঞ্জ রাডার ও জেনেসিস কমবেট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম!! এতে রয়েছে একটি ফ্যালাক্স CIWS, ১ টি ৭৬ মিমি অটোমেরেলা গান, ৮ টি হারপুন এন্টিশীপ মিসাইল, ৪০ টি SM1 MR এয়ার ডিফেন্স মিসাইল যার রেঞ্জ ৭৪-১৬০ কিমি পর্যন্ত, এই ক্লাসের চারটি জাহাজে এর সাথে আরো আছে ৩২ টা রিম ১৬২ ESSM যার রেঞ্জ ৫০ কিমি. 2 টি ট্রিপল টর্পেডো টিউব আছে

সুতরাং তুলনামূলক আলোচনা থেকে এটা বুঝা যায় গ্রীসের মেকু ২০০ ফ্রিগেট থেকে ও তুরস্কের জি ক্লাস ফায়ার পাওয়ার, কমবেট ম্যানেজমেন্ট ও রাডার রেঞ্জে অনেক এগিয়ে আছে এবং সংখ্যার দিক থেকে ও এটা দ্বিগুণ!! সুতরাং তুরস্ক একটা এডভান্টেজ পাবে এক্ষেত্রে!!

২. ইলি ক্লাস ফ্রিগেটঃ গ্রীস নৌবাহিনীতে ৩৫০০ টনের এই ক্লাসের ৯ টি ফ্রিগেট রয়েছে!! ফায়ার পাওয়ার হিসেবে এতে রয়েছে ২ টি ৭৬ মিলিমিটারের অটোমেরেলা গান, ৮ টি হারপুন এন্টিশীপ মিসাইল,
২ টি ফ্যালাক্স CIWS, ৮ টি রিম ৭ SSM শর্টরেঞ্জ এয়ার ডিফেন্স মিসাইল যার রেঞ্জ ১৯ কিমি এবং ২টি ৩২৪ মিমি এর টর্পেডো টিউব!!
ইলি ক্লাসের বিপরীতে তুরস্কের আছে
→বারবারোস ফ্রিগেটঃ ৪ টি
→ইয়াভুজ ফ্রিগেটঃ ৪ টি

★★ বারবারোস ফ্রিগেটঃ ৩৩০০ টনের এই ফ্রিগেট টি মূলত জার্মান মেকু ২০০ ক্লাস ফ্রিগেট যা গ্রীসের সবচেয়ে মর্ডান ফ্রিগেট হাইড্রা ক্লাসের সমান!! অর্থাৎ গ্রীস এবং তুরস্ক উভয়ই ব্যাবহার করে তবে ফায়ার পাওয়ারে তুরস্কের মেকু ২০০ KN ফ্রিগেট এগিয়ে থাকবে!!অস্ত্রহিসেবে আছে ৮ টি হারপুন মিসাইল, ২ টি টর্পেডো টিউব, ১ টি ৫৪ mm মেইন গান!! ৩ টি ওরেলিকন ২৫ মিমি CIWS আছে!! তুর্কীর এইধরনের ৪ টি ফ্রিগেটের 2 টি তে রয়েছে VLS যেখানে ৩২ টি ৫০ কিমি রেঞ্জের রিম ১৬২ ESSM মিসাইল রেয়েছে এবং বাকি দুইটিতে ৬৪ টি রিম ১৬২ ESSM রয়েছে!!!এগুলো শুধু গ্রীসের ইলি ক্লাস ফ্রিগেট থেকেই এগিয়ে আছে তা নয়, এইগুলো গ্রীসের সর্বাধুনিক হাইড্রা ক্লাস ফ্রিগেট থেকে ও এগিয়ে!!

★★ ইয়াভুজ ক্লাস ফ্রিগেটঃ ৩৩০০ টনের এই ফ্রিগেট গুলো তুরস্কের বহরে ৪ টি যুক্ত আছে!! যাতে ৮ টি হারপুন এন্টি শীপ মিসাইল রয়েছে, ২ টি ট্রিপল টর্পেডো টিউব, ১টি ৫৪ মিমি গান, ৩ টি ওরেলিকন ২৫ মিমি CIWS এবল ১৬ টি রিম ৭ SSM এয়ার ডিফেন্স মিসাইল রয়েছে যার রেঞ্জ ১৯ কিমি।।
সুতরাং এইক্ষেত্রে ও কোয়ালিটি বিবেচনায় তুর্কি এগিয়ে আছে!! সংখ্যার বিবেচনায় গ্রীস এগিয়ে আছে!!

করভেট ফ্লীটঃ তুরস্কের মোট ১০ টি করভেট থাকলে ও গ্রীসের কোনো করভেট নেই

১. এডা ক্লাস করভেটঃ এটি একটি স্টীলথ এন্টি সাবমেরিন কর্ভেট!! ২৪০০ টনের ৪ টি শীপ আছে তুর্কী নেভিতে, যাতে ১ টি ৭৬ মিমি মেইন গান, ২ টি এসেলসান ১২. ৭ মিমি মেশিনগান, ৮ টি হারপুন এন্টিশীপ মিসাইল, রেম ব্লক ১ সারফেস টু এয়ার মিসাইল ৮ টি যার রেঞ্জ ১০ কিমি, ২ টি ৩২৪ মিমি টর্পেডো টিউব এবং নির্মাণাধীন রয়েছে ২ টি যেগুলোতে তুরস্কের নিজস্ব এটামাকা এন্টিশীপ মিসাইল ইনস্টল করা হবে

২. বুরাক ক্লাস করভেটঃ ১৩০০ টনের এইরকম ৬ টি করভেট আছে তুর্কী নেভিতে!! ফ্রান্সের সাথে তুর্কির যদি ঝামেলা তবু ও মজার ব্যাপার হলো তুর্কির এই করভেটে ফ্রান্সের তৈরি ৪ টি করে এক্সোসেট এন্টিশীপ মিসাইল রয়েছে!! ১ টি ১০০ মিমি মেইন গান, ২ টি ২০ মিমি গান, ৪ টি এল১৫ টর্পেডো এবং ১ টি ৬ ব্যারেলের ৩৭৫ মিমি এন্টিসাবমেরিন মর্টার!
রেম ব্লক ১ সারফেস টু এয়ার মিসাইল ৮ টি যার রেঞ্জ ১০ কিমি।

গ্রীসের নেভিতে ফ্রিগেট সম এসব কর্ভেট না থাকায় তুর্কি একটা গ্রেট এডভান্টেজ পাবে!!

ফাস্ট এটার্ক বোট

তুর্কিঃ ১৯ টি
১. কিলিক ক্লাস বোটঃ ৯ টি
এগুলো তুর

সর্বশেষ

বাংলাদেশে আর্জেন্টাইন ফ্যানদের উল্লাসের ভিডিও পোস্ট করল ফিফা

বাংলাদেশি আর্জেন্টাইন ভক্তদের উল্লাসের ভিডিও পৌঁছে গেছে বিশ্বফুটবলের প্রধান নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা পর্যন্ত। তারা বাংলাদেশি ভক্তদের এই উল্লাসের ভিডিও পোস্ট করেছে টুইটারে।গতকাল রাতে মেক্সিকোকে...

রোলস-রয়েল পুরস্কারের গুজব উড়িয়ে দিলেন সৌদি জাতীয় দলের ফুটবলার

দুবাই: সৌদি আরবের জাতীয় দলের একজন ফুটবলার রোলস-রয়েল পুরস্কারের গুজবকে অস্বীকার করেছেন। বিভিন্ন গনমাধ্যমে গুজব উঠে যে প্রতিটি খেলোয়াড়কে ফিফা বিশ্বকাপ কাতার ২০২২ গ্রুপ...

রূপপুর পারমাণবিক কেন্দ্রের ট্রেনিং সেন্টারে বাংলাদেশী বিশেষজ্ঞদের প্রশিক্ষণ শুরু

নির্মাণাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিরাপদে পরিচালনার জন্য বাংলাদেশী বিশেষজ্ঞদের প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে। রূপপুর প্রকল্প সাইটে অবস্থিত ট্রেনিং সেন্টারে চলতি মাস থেকে দু’টি গ্রুপ...

আর্টিলারির ধ্বংসাত্মক ক্ষমতার নতুন যুগে বাংলাদেশ

TRG-300 টাইগার মাল্টিপল লঞ্চ রকেট/মিসাইল সিস্টেম সেনাবাহিনীতে অন্তর্ভুক্তির মধ্যে দিয়ে রাতারাতি আর্টিলারি সক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে বাংলাদেশের। এই সিস্টেমটি যুক্ত হওয়ার আগে বাংলাদেশের আর্টিলারি হামলার...