সাম্প্রতিক শিরোনাম

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টায় আরো ১৮ জনের মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গেল ২৪ ঘণ্টায় আরো ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) সকাল ৯টা থেকে শুক্রবার (৯ জুলাই) সকাল ৯টার মধ্যে মারা যান তারা।

শুক্রবার (৯ জুলাই) সকালে রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগের দিনও ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছিল এই হাসপাতালে।

শামীম ইয়াজদানী বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় যে ১৮ জন মারা গেছেন, তাদের মধ্যে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। এ ছাড়া ১৫ জন করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। মারা যাওয়া ১৮ জনের মধ্যে ১০ জনের বাড়ি রাজশাহী জেলায়।

এ ছাড়া নওগাঁর দুজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের দুজন, নাটোরের দুজন, সিরাজগঞ্জের একজন এবং কুষ্টিয়ার একজন মারা গেছেন। করোনা সংক্রমণ ও উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে এসেছিলেন তারা।

রামেক হাসপাতাল পরিচালক জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ চারজন মারা গেছেন রামেক হাসপাতালের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে। এ ছাড়া নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্র (আইসিইউ) ও ২২ নম্বর ওয়ার্ডে তিনজন করে, ১৫ ও ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে দুজন করে এবং ৩, ৪, ১৬ ও ২২/৩০ নম্বর ওয়ার্ডে একজন করে মারা গেছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণে মারা গেছেন রাজশাহীর দুজন ও নওগাঁর একজন। এ ছাড়া উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ১৫ জনের মধ্যে রাজশাহীর ৮ জন, দুজন করে নাটোর ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের এবং একজন করে নওগাঁ, কুষ্টিয়া ও সিরাজগঞ্জের বাসিন্দা। স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের মরদেহ দাফনের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

৪৫৪ শয্যার করোনা ইউনিটে শুক্রবার সকাল ৯টা পর্যন্ত রোগী ভর্তি রয়েছে ৫০১ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে ভর্তি রয়েছে ২০ জন। করোনা নিয়ে এ পর্যন্ত ভর্তি রয়েছে ২০৬ জন। এ ছাড়া উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছে ২৩১ জন। করোনা ধরা পড়েনি হাসপাতালে ভর্তি ৬৪ জনের নমুনায়। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ৭৪ জন। এই এক দিনে হাসপাতাল ছেড়েছে ৫২ জন।

বৃহস্পতিবার (০৮ জুলাই) রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল ল্যাবে ২৮২ জনের এবং রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ পিসিআর ল্যাবে ২৮০ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে রামেক হাসপাতাল ল্যাবে ৩২ ও রামেক ল্যাবে ৭২ জনের নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষার অনুপাতে রাজশাহীর ১৮ দশমিক ১৬ শতাংশ এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২০ দশমিক ৪৮ শতাংশ নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে।

প্রসংগত গত ১ জুলাই ২২ জন, ২ জুলাই ১৭ জন, ৩ জুলাই ১৩ জন, ৪ জুলাই ১২ জন, ৫ জুলাই ১৮ জন, ৬ জুলাই ১৯ জন, ৭ জুলাই ২০ জন এবং ৮ জুলাই ১৮ জন প্রাণ হারিয়েছে রামেক হাসপাতালে। গত ২৯ জুন করোনা ইউনিটে সর্বোচ্চ ২৫ জন মারা যায়। করোনা সংক্রমণ শনাক্তের পর হাসপাতালে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড এটি।

গত বছরের এপ্রিল থেকে এই বছরের জুন পর্যন্ত রামেক হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে সাত হাজার ১৬১ জন রোগী। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়ে গেছে পাঁচ হাজার ৯২৭ জন। এই ১৪ মাসে মারা গেছে এক হাজার ৭৮ জন। এর মধ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩৪৬ জনের। অন্যদের মৃত্যু হয়েছে উপসর্গ নয়তো অন্যান্য শারীরিক জটিলতায়।

সর্বশেষ

আমরা অর্থ চাই না, আমার ভাইয়ের হত্যা কারীর শাস্তি চাই

সুজন চৌধুরী, আলীকদম (বান্দরবান): সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ছোটনশীলের ঘাতক জীপ চালককে দ্রত গ্রেপ্তার ও ন্যায় বিচারের দাবিতে বান্দরবানের আলীকদম মানববন্ধন করেছেন উপজেলা ছাত্রলীগ,বন্ধুমহল ও...

ইয়াবাসহ তিনজনকে আটক করল সেনাবাহিনী

আলীকদম(বান্দরবান) প্রতিনিধি: বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায় অভিযান চালিয়ে ৮ হাজার ইয়াবাসহ তিন জনকে আটক করেছে সেনাবাহিনী।শুক্রবার (১৫এপ্রিল) বিকাল সাড়ে ৪ টায় আলীকদম বাজারস্থ জিয়া বোডিং...

বিদেশ থেকে ফেন্সিডিল আমদানির অনুমতি চাইলেন আ. লীগ নেতা

ঈশাত জামান মুন্না, লালমনিরহাট : জেলা পুলিশের খোদ পুলিশ সুপারের সামনে ভারতীয় ফেন্সিডিল আমদানি ও নিজে সেবনের কথা বলে রীতিমত বিব্রত অবস্থায় সামাজিক যোগাযোগ...

টানা ৪র্থ বার শ্রেষ্ঠ ওসির পুরস্কার পেলেন কালীগঞ্জ থানার ওসি- এটিএম গোলাম রসুল

ঈশাত জামান মুন্না, লালমনিরহাট: মঙ্গলবার জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে রংপুর রেঞ্জর শ্রেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তাদের পুরস্কারের ক্রেজ তুলে দেন এসপি আবিদা সুলতানা বিপিএম-পিপিএম ।জানা গেছে,...