সাম্প্রতিক শিরোনাম

চীনে উইঘুর আটককেন্দ্রে ধর্ষণ, নিন্দা জানাল যুক্তরাষ্ট্র

উইঘুর মুসলিম সংখ্যালঘুদের আটককেন্দ্রে রেখে নিয়মিত ধর্ষণ ও নারীদের নির্যাতনের ঘটনা জানতে পেরে কঠিন শাস্তি দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

hiastock

যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, উইঘুর নারীদের ওপর চলা অবিচার দেখে তারা বিচলিত হয়ে পড়েছে। চীনের আটককেন্দ্রের সাবেক ভুক্তভোগী ও প্রহরীর বক্তব্য নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে বিবিসি। সেই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে প্রতিক্রিয়া জানায় যুক্তরাষ্ট্র।

গত বুধবার চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, প্রতিবেদনটি পুরোটাই মিথ্যা। তবে চীনে বন্দিশিবিরে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, যৌন নিপীড়ন ও শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরে রয়েছে। বিবিসির প্রতিবেদনেও বিস্তারিত বিবরণ উঠে এসেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানান, চীনের জিনজিয়াংয়ে সংখ্যালঘু উইঘুর ও অন্য মুসলিমদের আটকে রেখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, যৌন নিপীড়ন এবং নারীদের ওপর অত্যাচার চালানোর খবরে আমরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।

এই নৃশংসতা বিবেককে নাড়া দেয় এবং এর গুরুতর ফল অবশ্যই তাদের ভোগ করতে হবে।

অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মরিস পাইনে এ ব্যাপারে বলেন, ওই অঞ্চলে এখনই জাতিসংঘ প্রতিনিধিদলকে যাওয়ার অনুমতি দিতে হবে। আমরা স্বচ্ছতার বিষয়কে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে থাকি।

চীনকে অনুরোধ জানাতে চাই যে, জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচলেটসহ আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকদের অবিলম্বে জিনজিয়াংয়ে প্রবেশাধিকার দিতে হবে।

সর্বশেষ খবর

জনপ্রিয় খবর

hiastock