সাম্প্রতিক শিরোনাম

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন আগামী ২৬ মার্চের মধ্যেই বাতিলের দাবি

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ভাসানী অনুসারী পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন আগামী ২৬ মার্চের মধ্যেই বাতিলের দাবি জানিয়েছেন।

শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এনডিপি) আয়োজিত এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। মুশতাক আহমেদ হত্যার প্রতিবাদে এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে কালাকানুন উল্লেখ করে তিনি বলেন, নিরাপত্তার জন্য অন্য আইন আছে, প্রয়োজনে সেটি সংশোধন করুন, কিন্তু ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের নামে প্রতারণা করবেন না। এটি অবশ্যই কবর দিতে হবে।

অনুষ্ঠানে এনডিপির সভাপতি ক্বারী আবু তাহেরের সভাপতিত্বে আরো বক্তৃতা করেন, বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, গণস্বাস্থ্যের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, ইসলামী ঐক্যজোটের নেতা মাওলানা শওকত আমিন, মনিরুজ্জামান মনির, দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীর কাছে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানতে চান, জয়কে কত টাকা বেতন দেন, এটা জনগণের জানার অধিকার আছে। তিনি আমেরিকায় বসে কত টাকা নেন?

এ সম্পর্কে প্রশ্ন করায় লতিফ সিদ্দিকিকে চাকুরিচ্যুত হতে হয়েছিল।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ব্যাংক লুট, শেয়ারবাজার লুটপাটকারীদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয় না, কিন্তু ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় এখন প্রায় এক হাজার মানুষকে কারাগারে রাখা হয়েছে।

একটি কার্টুন আঁকলে কি এমন ক্ষতি হয়’ প্রশ্ন করে তিনি বলেন, কারাগারে মুশতাক আহমদকে বিনা চিকিৎসায় মরতে হয়েছে। এখন কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে যদি চিকিৎসা দেওয়া না হয়, এ কারণে তার যদি মৃত্যু হয় তাহলে এর জন্য কে দায়ী হবে। সরকার ও প্রধানমন্ত্রীকে এর দায় নিতে হবে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুও তার বইতে কারাগারে চিকিৎসা ভালো না থাকার বিষয়টি লিখে গেছেন। এখনও দেশের কারাগারগুলোতে ভালো চিকিৎসক ও চিকিৎসা ব্যবস্থা নেই। জরুরি ইসিজি, হার্টের চিকিৎসা ব্যবস্থা নেই। এগুলোর উন্নয়ন না করা বঙ্গবন্ধুকেই অসম্মান করার সামিল।

করোনার টিকা নেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, আপনাকে এতদিন টিকা নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে আসছিলাম। কিন্তু আপনি ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আসার পর করোনা টিকা নিয়েছেন। কিন্তু এ টিকা আপনি ঘরে না বসে যদি বিএসএমএমইউতে এসে নিতেন তাহলে দেখতেন টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে কেমন ব্যবস্থাপনা চলছে।

তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, আপনি টিকা নিয়েছেন কিন্তু এটি কোন টিকা তা জনগণের জানার অধিকার রয়েছে। আপনি কি জনগণকে যে টিকা দিচ্ছেন সে টিকা নিয়েছেন, নাকি ভারতের কোনো বিশেষ টিকা নিয়েছেন, নাকি অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নিয়েছেন তা জনগণকে জানান।

দেশে কালো মেঘ দেখা যাচ্ছে মন্তব্য করে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শংকর এসেছেন। তিনি গতবাঁধা নানা কথা বলছেন। তিনি বলছেন সীমান্তে বিনা বিচারে আর মারা হবে না। কিন্তু তোমরা ফেলানি হত্যার বিচার কি করেছ? সীমান্তে প্রতিসপ্তাহে আমাদের মানুষকে হত্যা করছে।

তিনি বলেন, ভারত কানেকটিভিটি চাচ্ছে। কানেকটিভিটি কি? গুজরাটের পণ্য আসামে যেতে পারে না। তারা আমাদের ওপর দিয়ে পণ্য নিয়ে যাবে। তারা সুলভ মূল্যে খাবে। আমার রক্তের বিনিময়ে অর্জিত দেশের ওপর দিয়ে যাবে; এটা হতে পারে না।

দেশে ১৯৭৪ সালের মতো দুর্ভিক্ষের আভাস দেখা যাচ্ছে জানিয়ে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, দুর্যোগের ঘনঘটা দেখতে পাচ্ছি। মার্কিন খাদ্য সংস্থার রিপোর্ট মতে দেশে এ বছর এক মেট্রিক টন ধান কম উৎপাদন হয়েছে, গম কম উৎপাদন হয়েছে ৭ মেট্রিক টন।

এ জন্য দেশে আবার বঙ্গবন্ধুর ৭৪ এর আমলের মতো পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। তিনি বলেন, সরকার বাইরে থেকে খাদ্য আমদানির চিন্তা করছে, কিন্তু যে কৃষকরা আমাদের বাঁচিয়ে রেখেছে তাদের কথা চিন্তা করছে না।

বরং নিজ দলের ব্যবসায়ীদের প্রণোদোনা দিচ্ছে। যারা লুটপাটের রাজা। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমরা আপনার কল্যাণ চাই। আপনাকে আমরা জীবিত দেখতে চাই। আপনি উজবুক মন্ত্রীদের কথা শুনবেন না। দেশে কোনো সমস্যা দেখা দিলে মন্ত্রীদের তখন খুঁজে পাওয়া যাবে না। এ জন্য আপনাকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

তিনি বিরোধী দলের উদ্দেশে বলেন, এখন সময় এসেছে সব দলমতের মানুষকে সাথে নিয়ে রাজপথে নামার। দেশে পরিবর্তন ছাড়া শান্তি আসবে না।

সর্বশেষ

ঈশ্বরদীতেও দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৭.৮ ডিগ্রি

পাবনার ঈশ্বরদীতে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। শুরু হয়েছে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ। ঘন কুয়াশা ও হিমেল বাতাসে বিপর্যস্ত হয়ে হয়ে পড়েছে জনজীবন।বুধবার (১১ জানুয়ারি)...

আফগানিস্তানে অন্তর্ভূক্তিমূলক আর্থ-সামাজিক অগ্রগতি দেখতে চায় বাংলাদেশ

প্রতিবেশী হিসেবে বাংলাদেশ আফগানিস্তানে অন্তর্ভুক্তিমূলক আর্থ-সামাজিক অগ্রগতি দেখতে চায়, যেখানে আফগান জনগণ তাদের উন্নত জীবনের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে পারে। সম্প্রতি আফগানিস্তানের উচ্চ শিক্ষা এবং...

গণতন্ত্রের নামে বাংলাদেশে অন্য রাষ্ট্রের হস্তক্ষেপের সুযোগ নেই বলছে রাশিয়া

গণতন্ত্রের অজুহাত দিয়ে বাংলাদেশ কিংবা অন্য কোনো দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বাইরের কারো হস্তক্ষেপ করার সুযোগ নেই। কোনো রাষ্ট্রে স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের সুরক্ষায় জাতিসংঘের ঘোষণায়...

র‍্যাবের উপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হবেনা, লবিষ্টকে জেরার আপিল করতে পারবে বাংলাদেশ

যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্যে র‍্যাবের কার্যক্রমে নিষেধাজ্ঞা আরোপের ব্যপারে শক্তিশালী লবিস্ট নিয়োগ করা হলেও সে পদক্ষেপ ভেস্তে গিয়েছে।এরই মধ্যে র‍্যাপিড একশন ব্যাটালিয়ন-র‍্যাবের ব্যপারে নিষেধাজ্ঞার আবেদন...