সাম্প্রতিক শিরোনাম

নরসিংদী পৌর নির্বাচন প্রচারনার শেষদিনে গ্রেফতার ১৮, শহর জুড়ে গ্রেফতার আতংক

বোরহান মেহেদী : নরসিংদীতে পৌর নির্বাচনের ১২ ফেব্রুয়ারী রাত ৮ টায় শেষ হলো প্রার্থীদের প্রচার প্রচারনা। প্রার্থীদের মধ্যে ছিল একজন অন্যজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাল্টা অভিযোগ।গ্রেফতার করা হয় নরসিংদী সদর উপজেলা সাবেক চেয়ারম্যান জেলা বিএনপির সহ সভাপতি মন্জুর এলাহী, নরসিংদী বাজার বণিক সমিতির সভাপতি বাবুল সরকার সহ ১৮ বিএনপি নেতা-কর্মীকে।সারা শহর জুড়ে গ্রেফতার আতংক।

hiastock

১৪ ফেব্রুয়ারী সারা দেশের ন্যায় এবার চতুর্থ ধাপে ৫৬ টি পৌরসভা নির্বাচনের মধ্যে নরসিংদীতে ২টি পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এর মধ্যে নরসিংদী সদর ও মাধবদী পৌরসভা রয়েছে। দুটি পৌরসভার মধ্যে নরসিংদী পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ত্রিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা রয়েছে।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগ-বিএনপি ও বিদ্রোহী নিয়ে ত্রিমুখী লড়াইয়ে জমে উঠেছিল এবারের পৌর নির্বাচন। পুরো পৌরসভা জুড়ে ব্যানার, পোস্টার ও লিফলেটের সমারোহ। করোনার প্রভাবকে পেছনে ফেলে মেয়র কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীরা চষে বেড়িয়েছেন ভোটারদের বাড়ি বাড়ি। আর পাড়া-মহল্লা ও চায়ের স্টলে আড্ডাসহ সবখানে শুধু নির্বাচনী আলোচনা।

প্রার্থীরা ভোটারদের সঙ্গে করছেন কুশল বিনিময়, উঠান বৈঠক ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষদের সঙ্গে চলছে আলোচনা। পাশাপাশি ভোটারদের দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। এছাড়া সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে নিজেদের জানান দিচ্ছেন প্রার্থীরা।
নরসিংদী পৌরসভায় এবার মেয়র পদে লড়ছেন চারজন প্রার্থী।

এর মধ্যে আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীকে লড়ছেন শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন বাচ্চু। বিএনপি থেকে ধানের শীষ প্রতীকে লড়ছেন জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হারন অর রশিদ। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ হাত পাখায় লড়ছেন মো. আসাদুল হক। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী (বিদ্রোহী) হিসেবে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা এস এম কাইয়ুম মোবাইল প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। যদিও মেয়র পদের চার জন প্রার্থীই ছুটছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে।

তবুও ভোটের মাঠে মূল আলোচনায় রয়েছেন আওয়ামী লীগের আমজাদ হোসেন বাচ্চু (নৌকা), বিএনপির হারুন অর রশিদ (ধানের শীষ) এবং আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এস এম কাইয়ুম (মোবাইল)।

এ দিকে শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন বাচ্চু এই বার প্রথম নির্বাচন অংশ গ্রহন করে। ভোটারদের বেশ সাড়া জাগাতে সক্ষম হন সাদা মনের মানুষ এই প্রার্থীর রয়েছে বেশ গ্রহন যোগ্যতা।তিনি সামাজিক কর্মকান্ড ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সহিত জড়িত। রাজনীতি যার নেশা ও পেশা, নরসিংদী সরকারী কলেজের সাবেক জনপ্রিয় জিএস ও সাবেক ছাএলীগ নেতা এস,এম,কাইয়ূম। গতবার ও মোবাইল মার্কা নিয়ে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে তীব্র প্রতিদন্ধিতা গড়ে তুলেছিলেন।

এবারও তিনি মোবাইল মার্কা নিয়ে লড়ে যাচ্ছেন। অপর দিকে জেলা বিএনপির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ হারুন ধানের শীষ মার্কা নিয়ে লড়ে যাচ্ছেন। তিনি এর আগে বিএনপি সরকারের আমলে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে সফল হতে পারেনি।কিন্তু এবার বেশ আশাবাদী ছিলেন।
নরসিংদী পৌরসভা নির্বাচনে এবার মোট ভোটার সংখ্যা ৯৯ হাজার ৪৫৪। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৪৯ হাজার ১৫৭ এবং মহিলা ভোটার ৫০ হাজার ২৯৭ জন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মেজবাহ উদ্দিন জানান, নির্বাচনে ৪ জন মেয়র প্রার্থীর পাশাপাশি ৯ টি ওয়ার্ডে ৩৩ জন সাধারণ পুরুষ কাউন্সিলর ও ১১ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করবেন। আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারী ৪০ টি কেন্দ্রে ২৭৮ টি বুথে ব্যালটের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

সর্বশেষ

পটেটোর প্যাকেট আনতে গিয়ে পানিতে ডুবে দুই বছরের শিশুর মৃত্যু

সুজন চৌধুরী, আলীকদম: বান্দরবানের আলীকদম উপজেলার নয়াপাড়া ইউনিয়নে পানিতে ডুবে সিফাত মনি নামের দুই(২) বছরের কন্যা শিশুর মৃত্যু হয়েছে।পানিতে ডুবে মৃত্যু হওয়া সিফাত মনি...

মৃত্যু থামছেই না রামেকের করোনা ইউনিটে

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৩ করোনা পজেটিভ ছিলেন। অন্য ৭ জন উপসর্গ...

সরকারের সবচেয়ে বড় ভুল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখাঃ জাফরুল্লাহ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধে রেখে জাতীকে মেরুদণ্ডহীন করে দিচ্ছে উল্লেখ করে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, এই সরকারের সবচেয়ে বড় ভুল শিক্ষা...

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললে ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ থাকতে পারবে না : মান্না

নাগরিকের ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, তিনি জানেন যদি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হয়, যদি হলগুলো খুলে দেওয়া হয় তাহলে হলে বিরোধীদলীয় ছাত্ররা ঢুকবে। তখন...