চট্টগ্রামে করোনা শনাক্ত রোগী ১৫ হাজার ছুঁইছুঁই

গত ২৪ ঘন্টায়ও চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে ১১৭ জন সহ শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৫ হাজার ছুঁইছুঁই। সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন আরও ১০৫ জন সহ মোট ৩ হাজার ৬১ জন।তবে গতদিন মৃত্যু হয়নি কারও এপর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ২৪০ জন।

আজ ৮ আগস্ট শনিবার সকালে  চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, গত ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রামে করোনায় কারও মৃত্যু হয়নি; সুস্থ হয়েছেন ১০৫ জন।আরও ১১৭ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৯০ জন নগর ও ২৭ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। এ নিয়ে চট্টগ্রামে মোট আক্রান্ত ১৪৯৯১ জন।

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় বিআইটিআইডিতে ০৩ জন, সিভাসুতে ০৯ জন, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজে ২৭ জন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ২৬ জন, ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ২৫ জন, শেভরণ ল্যাবে ২৫ জন এবং কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ০২ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, শুক্রবার চট্টগ্রামে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয় ৯০৯ টি। এর মধ্যে ১৮০ টি বিআইটিআইডিতে, ১৩৫ টি সিভাসুতে, ১৮৬ টি চমেকে, ১৫২ টি চবিতে, ৭৪ টি ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাব, ১৭৪ টি শেভরণ ল্যাবে এবং ০৮ টি মেডিকেল কলেজ ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করানো হয়।

উপজেলা পর্যায়ে নতুন শনাক্ত ২৭ জনের মধ্যে বাঁশখালীর ২, পটিয়ায় ৩, বোয়ালখালীতে ২, রাউজানে ৯, ফটিকছড়ির ১, হাটহাজারীর ৭, সীতাকুণ্ডে ৩ জন রয়েছেন।

সর্বশেষ

সামরিক সম্পর্ক জোরদারে তুরস্ক সফরে বাংলাদেশ সশস্ত্রবাহিনীর প্রতিনিধিদল

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ শামীম কামাল এর নেতৃত্বে Armed force war course 2022 এর ২৬ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল Overseas study tour (OST) এ তুরস্ক...

নিরাপত্তা পরিষদে মায়ানমার ইস্যুতে বাংলাদেশকে সমর্থন দেবে যুক্তরাজ্য

রাখাইন রাজ্যে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সঙ্গে আরাকান আর্মির লড়াইয়ের জেরে দুই দেশের সীমান্তের উদ্ভূত পরিস্থিতি নিরসনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা চেয়েছে বাংলাদেশ। এরই ধারাবাহিকতায় যুক্তরাজ্য বলেছে,...

কাউকে কাউন্ট করি না, আমরা সবসময় প্রস্তুত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশের ভূখণ্ডে বারবার মর্টারের গোলা পড়ার ঘটনার প্রেক্ষাপটে একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন...

মেয়েদের জন্য দাঁড়িয়ে পথে পথে চেনা মুখগুলি

মঙ্গলবারেই জানানো হয় বিমানবন্দর থেকে বনানী- মহাখালী- বিজয় সরণী হয়ে সাত রাস্তা-মগবাজার হয়ে বাফুফে যাবে মেয়েরা। সেই অনুযায়ী যার যার মতো করে দাঁড়িয়েছিলেন সবাই।...